সৌদিতে সড়ক দুর্ঘটনায় লক্ষ্মীপুরের মাসুদ নিহত

নিজস্ব প্রতিনিধি: সৌদি আরবের  সড়ক দুর্ঘটনায় মাসুদ রানা (৪০) নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে।  বুধবার সৌদি আরবের স্থানীয় সময় রাত দশটার দিকে মালবাহী ট্রাক চালিয়ে রিয়াদ থেকে দাম্মাম যাওয়ার সময় রাফিয়া নামক স্থানে ওই দুর্ঘটনা ঘটে।

মাসুদ লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার দালাল বাজার ইউনিয়নের মহাদেবপুর গ্রামের লুৎফুর রহমানের ছেলে । তার বাবা একই ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য।

তার মৃত্যুর সংবাদে পরিবার ও স্বজনদের মাঝে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। কান্না থামছেনা মাতা-পিতাসহ ৫ ভাই আর ১ বোনের।

তার  সৌদির এক বন্ধু জানায়,   রিয়াদ থেকে দাম্মাম যাওয়ার সময় রাফিয়া এলাকায় একটি কাভার্ড ভ্যানের সাথে সংঘর্ষ হয়।  এতে সে গুরুতর আহত হয়। পরে স্থানীয় লোকজন ও তার অপর ২ ভাই রিয়াদ হোসেন ও জুয়েল রানা তাকে উদ্ধার করে রাফিয়া এলাকায় হাসপাতালে ভর্তি  করে । পরে কর্তব্যরত চিকিৎসক রাত ১২ টার দিকে তাকে মৃত ঘোষণা করেন। ৬ ভাই ও ১ বোনের মধ্যে মাসুদ রানা সবার বড়।

এ ব্যাপারে সৌদি আরব থেকে নিহতের ছোট ভাই রিয়াদ হোসেন জানান, তার বড় ভাই মাসুদ রানাসহ তারা ৩ ভাই সৌদি আরবের দাম্মাম এলাকায় থাকেন। বড় ভাই মাসুদ রানা পেশায় গাড়ি চালক।অপর ২ ভাই ব্যবসা করেন। বুধবার রাজধানী রিয়াদ থেকে দোকানের জন্য মালামাল নিয়ে নিজেই গাড়ি চালিয়ে দাম্মাম আসার পথে একটি কাভার্ড ভ্যানের সাথে সংঘর্ষে তার বড় ভাই মাসুদ নিহত হয়।

তিনি আরও জানান, তার বড় ভাই বিগত ২০ বছর যাবত সৌদি আরবে অবস্থান করছেন। বর্তমানে তার লুৎফা আক্তার (৬) ও আরশি (২) নামে ২টি মেয়ে সন্তান রয়েছে।

নিহতের পরিবার ও স্থানীয় লোকজন মাসুদ রানার লাশ দেশে আনার ব্যাপারে সরকারের সহযোগিতা চেয়েছে।

এ ব্যাপারে দালাল বাজার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান সহেল  বলেন, ‘মাসুদ রানা সৌদি আরবে নিহত হবার খবর শুনেছি। এ ব্যাপারে কাগজপত্র প্রস্তত করে লাশ দ্রুত দেশে আনার প্রক্রিয়া চলছে।’