সব কিছু
লক্ষ্মীপুর বৃহস্পতিবার , ১৪ই নভেম্বর, ২০১৯ ইং , ৩০শে কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ , ১৭ই রবিউল-আউয়াল, ১৪৪১ হিজরী

লক্ষ্মীপুরে সাইরেন বাজানো এ নব্য ভিআইপি কারা ?

লক্ষ্মীপুরে সাইরেন বাজানো এ নব্য ভিআইপি কারা ?

লক্ষ্মীপুর জেলা জুড়ে যানজটের মধ্যেও দামি গাড়িতে চড়ে সাইরেন বাজানো স্বঘোষিত নব্য ভিআইপিদের তৎপরতা বেড়েছে। তারা গাড়ি ছাড়াও মোটরসাইকেলেও এ রকম সাইরেন বাজিয়ে ধাবড়িয়ে বেড়াচ্ছেন। তারা রাষ্ট্রীয় কোনো পদ-পদবিতে না থাকলেও  প্রভাবশালীদের আত্নীয় অথবা ক্ষমতাসীন দলে নিজের ছোটখাটো দলীয় পদের পরিচয় ভাঙিয়ে জেলার বিভিন্ন এলাকার রাস্তায়  উচ্চৈঃ স্বরে সাইরেনযুক্ত গাড়ি হাঁকিয়ে আতঙ্ক সৃষ্টি করছেন। এ দৃশ্য এখন প্রায় দেখা যায়।

অথচ পুলিশ, এ্যাম্বুলেন্স, ফায়ার সার্ভিস, অনুমোদিত ভিআইপি ও নিরাপত্তা বাহিনীর গাড়িগুলো জরুরি প্রয়োজনে এ সাইরেন ব্যবহার করতে পারেন।  কিন্ত ইদানিং কিছু ব্যক্তিগত গাড়িতে ও  এ সাইরেন ব্যবহার হচ্ছে দেখা যায়।

এছাড়া জেলা জুড়ে উঠতি বয়সী ধনী ঘরের কিছু তরুণ সাইলেন্সার ছাড়া পাইপ ও ডিজিটাল হর্ন বাজিয়ে বিকট শব্দ করে গাড়ি হাঁকিয়ে আতঙ্ক ছড়াচ্ছেন।

বৃহস্পতিবার(৭মার্চ ) রাত ৯টায় রায়পুর শহরের বাস পেট্রোল পাম্ব এলাকায় এক কালো গাড়িতে ভিআইপি সাইরেন বাজিয়ে সাইড না পেয়ে এক পিকআপ  চালককে মারতে তেড়ে আসতে দেখা যায়।  স্থানীয় পথচারীরা ভিআইপি সাইরেন লাগানো গাড়ির চালকে কার গাড়ি এটি জানতে চাইলে চালক জানান, বড় স্যারের!  তবে সেই বড় স্যারের পরিচয় না দিয়েই দ্রুত সটকে পড়েন।

রায়পুর ও রামগঞ্জে প্রায় সময় এ রকম তথাকথিত ভিআইপির দেখা মেলে।

অন্যদিকে জেলার রামগঞ্জ, রায়পুর, দালালবাজার, চন্দ্রগঞ্জসহ অনেক জায়গায় ভাড়ায় চালিত অনেক যানবাহন রাস্তার ঝামেলা এড়াতেই মূলত এই ভিআইপি সাইরেন ব্যবহার করেন বলে দাবী করেন গোলাম রাব্বানী নামে একজন রেন্ট-এ- কারের মালিক।

জেলা বিআরটিএ এর তথ্য মতে কোন মাইক্রোবাস, মোটরসাইকেলকে ভিআইপি সাইরেন বাজানোর অনুমতি দেয়া হয়নি। যারা ভিআইপি সাইরেন ব্যবহার করছেন তারা নিজকে জানান দেওয়ার চেস্টা করছেন মাত্র।

নিরাপদ সড়ক আন্দোলন চন্দ্রগঞ্জ থানার সভাপতি আলী হোসেন বলেন, অনুমোদিত ভিআইপি ব্যক্তি ছাড়া যারা ক্ষমতার প্রভাবকে কাজে লাগিয়ে ভিআইপি সাইরেন দিয়ে, ভিআইপি সাজতে চায় প্রশাসনের উচিৎ তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া।
বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট অথোরেটি (বিআরটিএ) চট্টগ্রামের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এস এম মনজুরুল হক এ বিষয়ে জানান, সংশ্লিষ্ট সংস্থা ছাড়া যারা গাড়িতে জরুরি কাজে ব্যবহার হওয়া সাইরেন ব্যবহার করছে তা অবৈধ। তবে সাইরেন নিয়ে বাংলাদেশ মোটরযান আইনে কোন নির্দিষ্ট আইন না থাকায় আমরা এসব গাড়ি চালকদের বিরুদ্ধে কোন শাশ্তি মূলক কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারছি না। তবে আদেশ অমান্য করার দায়ে সর্বোচ্চ ৫০০ টাকা পর্যন্ত জরিমানা করা যায়।

অনুসন্ধান আরও সংবাদ

৭২ বছর যাবত ভাড়া জীর্ণশীর্ণ ঘরে চলছে রামগতিরহাট ডাকঘর

লক্ষ্মীপুরে নিরাপত্তাহীনতায় ১০ ইউপি চেয়ারম্যান

এড. আবদুস সাত্তার পালোয়ানের লাইভ; ঢাকায় ময়লা সরিয়ে খাল পুনরুদ্ধারের পর ব্রীজ হচ্ছে

লক্ষ্মীপুরে পরিবহনে চাঁদাবাজি চলছেই

লক্ষ্মীপুরে সাইরেন বাজানো এ নব্য ভিআইপি কারা ?

মরতে বসেছে ভুলুয়া নদী

লক্ষ্মীপুরটোয়েন্টিফোর মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন  
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত লক্ষ্মীপুরটোয়েন্টিফোর ডটকম ২০১২ - ২০১৯
সম্পাদক ও প্রকাশক: সানা উল্লাহ সানু
রতন প্লাজা (৩য় তলা) , চক বাজার, লক্ষ্মীপুর-৩৭০০
ফোন: ০১৭৯৪-৮২২২২২,ইমেইল: [email protected]