সব কিছু
facebook lakshmipur24.com
লক্ষ্মীপুর বুধবার , ২৬শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ১২ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ২২শে জমাদিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি
রায়পুরে ডাকাতিয়া নদীতে বালু উত্তো্লন,হুমকির মুখে বসতবাড়ী - Lakshmipur24.com

রায়পুরে ডাকাতিয়া নদীতে বালু উত্তো্লন,হুমকির মুখে বসতবাড়ী

0
Share

রায়পুরে ডাকাতিয়া নদীতে বালু উত্তো্লন,হুমকির মুখে বসতবাড়ী

dakatiya-river-lakshmipurতাবারক হোসেন আজাদ: গত একমাস ধরে লক্ষ্মীপুরের রায়পুর উপজেলার তিনটি ইউনিয়নের (উত্তর ও দক্ষিন চরবংশী এবং চর আবাবিল) বেড়ি বাঁেধর পাশ ঘেঁেষ বয়ে যাওয়া ডাকাতিয়া নদীসহ সংযোগ খালগুলোতে অবাধে চলছে বালু ডাকাতি। এতে বেড়ি বাঁধসহ আশপাশের ফসলী জমিও ঘরবাড়ি হুমকির মুখে পড়ায় উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছেন এলাকাবাসী।

আ’লীগ ও যুবলীগের নামধারী প্রভাবশীরা বালু উত্তোলনই নয় তা ট্রলার ও ইঞ্জিন চালিত পাহাড় ট্রলিতে করে এসব বালু বিক্রি করছে মহা উৎসবে। ২নং উত্তর ও ৮নং দক্ষিন চরবংশী ইউনিয়নের খাসের হাট, আখন বাজার, মোল্লারহাট বাজারের ব্রিজের পার্শ্বে ও হায়দরগঞ্জের বেড়ি বাঁধের পার্শ্বে ডাকাতিয়া নদী ও সংযোগ খাল থেকে ড্রেজার মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলন করছেন । এবং তা নিচু জমিতে স্তুপ করা হচ্ছে। আর এসবের প্রতিবাদ করলে স্থানীয় লোকজন লাঞ্চিত এবং বিভিন্ন ভাবে হয়রানীর শিকার হন বলে অভিযোগ করেন এলাকাবাসী।

শুক্রবার (২১ ফেব্রুয়ারী) সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়, আখন বাজার এলাকায় ৬/৭টি নিচু ফসলি জমিতে ডাকাতিয়া নদী থেকে বালু উত্তোলন করে স্তুপ করছেন রফিক আখন, মাইন উদ্দিন হাওলাদার ও মোঃ লিটন স্থানীয় আ’লীগ নামধারী কয়েক নেতা । তারা ওই বালু মালবাহি ট্রলিতে করে রাখালিয়া বাজারের হেদায়েত মেম্বার নামে আরেক আ;লীগ নেতার কাছে বিক্রি করেছেন। তার পাশেই মোল্লারহাট এলাকার ব্রিজ সংলগ্ন মাইনুদ্দিন হাওলাদারের বাড়ির সামনে ডাকাতিয়া নদী থেকে বালু ইত্তোলন করে স্তুপ করছেন। খাসের হাট বাজারের চমকা ব্রিজের কাছে ডাকাতিয়া নদী সংলগ্ন খাল থেকে বালু উত্তোলন করছেন হামিদ মাস্টার নামে স্থানীয় এক যুবলীগ নেতা। তিনি তা টাকার বিনিময়ে মরবরাহ করছেন দেলোয়ার হোসেন নামে এক ব্যবসায়ীর বহুতল ভবন নির্মানের জন্য।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন গ্রামবাসী জানান, এ বালু উত্তোলনের সময় বাধা দেয়া হয়েছিল। কিন্তু প্রভাবশালীরা আমাদের বিভিন্ন ভাবে হয়রানীর হুমকী দেয়। পরে পাইবো’র কর্মকর্তাদের অফিসে গিয়ে কাউকে পাওয়া যায়নি। মোবাইলে জানালে তারা এসে টাকা খেয়ে চলে যান। দীর্ঘ একমাস ধরে এ বালু উত্তোলন চলছে। এতে করে পরিবেশ বিপর্যয়সহ দুপাশের ভাঙ্গতে শুরু করেছে। যে কোন সময় নিরিহ মানুষের বসত ঘরসহ ফসলী জমি তলিয়ে যেতে পারে।

যোগাযোগ করা হলে নিজেকে আ’লীগ নেতা দাবি করে মোঃ রফিক আখন ও মাইনুদ্দিন হাওলাদার বলেন, আমাদের জমি মেঘনা নদীতে বিলিন হয়ে ঘরবাড়ি তলিয়ে গেছে। এখন আমরা বালু উত্তোলন করে কোন রকমে চলছি। লাগলে কিছু নিয়ে যান। কর্মকর্তারাও এসে চা-পানি খেয়ে কিছু নিয়ে গেছে। আমরাও গরিবের উপকার করছি। বেশী বাড়াবাড়ি করলে নদীর চারপাশে বেড়া দিয়ে বালু উঠাব, দেখি কে ঠেকায়।

২নং চরবংশী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলতাফ মাস্টার, ৮নং দক্ষিন চরবংশী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হারুনুর রশিদ হাওলাদার ও তহসিলদার আব্দুর রহিম বলেন, এব্যাপারে আমরা কিছুই জানিনা। খোঁজ খবর নিয়ে দেখব।

পানি উন্নয়ন বোর্ডের ( পাউবো) উপ বিভাগীয় প্রকৌশলী আরিফউজ্জামান মোবাইল ফোনে জানান, তিনি অন্য কাজে ব্যস্ত আছেন। এসওকে মোঃ আবু হানিফকে পাঠিয়ে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। জনবল কম থাকায় এবং দরজা জানালা চুরি হওয়ায় রায়পুরে অফিস করতে পারছি না।

রায়পুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শারমিন আলম জানান, নদী থেকে বালু উত্তোলন ও বিক্রি করা জঘন্য অপরাধ। এখনই আমি আমার লোক পাঠিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা নিচ্ছি।

প্রতিবেদন আরও সংবাদ

পল্লী বিদ্যুতের ১০ খুঁটির ভয়ে ৩০ একর জমির চাষাবাদ বন্ধ পাঁচ বছর, হাঁটতেও ভয়পায় স্থানীয়রা

লক্ষ্মীপুরে বছরে উৎপাদন হচ্ছে ৫শ টন হাতে ভাজা গিগজ মুড়ি; যাচ্ছে বিদেশেও

রায়পুরের ৯ মাছঘাটে কমিশন নামের চাঁদা আদায়

রামগতির চর আবদুল্যায় আশ্রয়কেন্দ্র নেই!

লক্ষ্মীপুরে ওয়াপদা’র জায়গা বেদখলের উদ্দেশ্যে ২৬ বছর পর ইজাড়া গ্রহিতা উন্নয়ন সংস্থার বিরুদ্ধে মামলা

মৃতদের কবর দেওয়া নিয়ে দুশ্চিন্তায় লক্ষ্মীপুরের নদী ভাঙ্গা হাজারো মানুষ

লক্ষ্মীপুরটোয়েন্টিফোর বাংলাদেশ সরকারের তথ্য মন্ত্রনালয়ে অনলাইন নিউজপোর্টাল প্রকাশনার নিবন্ধনের জন্য আবেদনকৃত, তারিখ: 9/12/2015  
 All Rights Reserved : Lakshmipur24 ©2012-2021
Chief Mentor: Rafiqul Islam Montu, Editor & Publisher: Sana Ullah Sanu.
Sopna Monjil (Ground Floor), Goni Headmaster Road, Lakshmipur, Bangladesh.
Ph:+8801794 822222, WhatsApp , email: news@lakshmipur24.com