সব কিছু
facebook lakshmipur24.com
লক্ষ্মীপুর বুধবার , ২৬শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ১২ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ২২শে জমাদিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি
লক্ষ্মীপুরের মেঘনায় আকষ্মিক জলোচ্ছ্বাসটি উপকূলীয় বন্যা: জলবায়ু বিশেষজ্ঞ ড. আইনুন নিশাত

লক্ষ্মীপুরের মেঘনায় আকষ্মিক জলোচ্ছ্বাসটি উপকূলীয় বন্যা: জলবায়ু বিশেষজ্ঞ ড. আইনুন নিশাত

লক্ষ্মীপুরের মেঘনায় আকষ্মিক জলোচ্ছ্বাসটি উপকূলীয় বন্যা: জলবায়ু বিশেষজ্ঞ ড. আইনুন নিশাত

উজান থেকে দেশের দক্ষিণাঞ্চলের দিকে নেমে আসা বন্যার পানি, পূর্ণিমা এবং জলবায়ু পরিবর্তনের আংশিক পরিবর্তনের কারণে লক্ষ্মীপুরের মেঘনায় আকষ্মিকভাবে অস্বাভাবিক উচ্চতার জলোচ্ছ্বাস হয়েছে বলে ধারণা করছেন বাংলাদেশের জলবায়ু ও পানি বিশেষজ্ঞ ড. আইনুন নিশাত। তিনি এ আকষ্মিক জলোচ্ছ্বাসকে একটি উপকূলীয় বন্যা হিসেবে আখ্যায়িত করেন।

বৃহস্পতিবার এ প্রতিবেদকের সঙ্গে আলাপে তিনি বলেন, বর্তমানে দেশে বন্যা পরিস্থিতির খুবই অবনতি ঘটেছে। সুনামগঞ্জ, সিলেট, মাদারীপুর, বিক্রমপুর, মুন্সিগঞ্জসহ দেশের উত্তরাঞ্চল ও মধ্যাঞ্চলে বন্যার পানির অবনতি হয়।  বিশেষ করে চাঁদপুর ও লক্ষ্মীপুর, ওই সব এলাকা হয়ে সমুদ্রে যায়। ব্রহ্মপুত্র নদীর পানি বিপদ সীমার উপরে, গঙ্গার পানি নামছে। পদ্মার পানি অনেক উঁচুতে এখন। শরীয়তপুর, মাওয়ার খুব খারাপ অবস্থা। এখনতো পূর্ণিমার কাছাকাছি সময়। পাশাপাশি সমুদ্রপৃষ্ঠের উচ্চতাও অনেকখানি বেড়েছে৷ এই যে সব মিলিয়ে লক্ষ্মীপুরে এমন অস্বাভাবিক জোয়ারের পানি।

লক্ষ্মীপুরের এমন জলোচ্ছ্বাসকে বন্যা বলা যাবে কিনা, এমন প্রশ্নে দেশের এ বিজ্ঞ জলবায়ু ও পানি বিশেষজ্ঞ বলছিলেন, যেখানে পানি গিয়ে মানুষের ক্ষতি করে, সেটাকেই আমরা বন্যা বলতে পারি। যদি জলোচ্ছ্বাসের পানি উঠে মানুষের ক্ষতি করে, সেটাকেও বন্যা বলতে পারেন। যেহেতু এটা উপকূলীয় অঞ্চলে হয়েছে, সেটাকে আপনি উপকূলীয় বন্যা বলতে পারেন।

ড. আইনুন নিশাত আরো বলেন, মরা কাটাল এবং ভরা কাটাল বলে একটা বিষয় আছে। আমাবস্যা বা পূর্ণিমার সময় সমুদ্রের পানি ফুলে উঠে। এমন অস্বাভাবিক জলোচ্ছ্বাসের কারণ হিসেবে, সেটিও কিন্তু বড় একটা কারণ। ভরা কাটাল, মরা কাটালের প্রভাব, উজানের পানির প্রভাব, বর্ষার পানির প্রভাবও রয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত ৫আগস্ট আকষ্মিকভাবে লক্ষ্মীপুরের মেঘনায় ৭ফুট উচ্চতার জলোচ্ছ্বাস হয়।  এতে মুহুর্তেই তলিয়ে যায় জেলার মেঘনাতীরের কমলনগর, রামগতি, সদর ও রায়পুরের ৬০কিলোমিটার এলাকা। এতে বিপর্যস্ত হয়ে পড়ে  জনজীবন। নদীপাড়ের মানুষ পানিবন্দি হয়ে বিপাকে পড়েন।মাছের পুকুর ও প্রজেক্ট ডুবে জোয়ারের পানিতে ভেসে যায় মানুষের কোটি কোটি টাকার মাছ। বন্ধ হয়ে যায় চুলোয় আগুন।

প্রতিবেদন আরও সংবাদ

পল্লী বিদ্যুতের ১০ খুঁটির ভয়ে ৩০ একর জমির চাষাবাদ বন্ধ পাঁচ বছর, হাঁটতেও ভয়পায় স্থানীয়রা

লক্ষ্মীপুরে বছরে উৎপাদন হচ্ছে ৫শ টন হাতে ভাজা গিগজ মুড়ি; যাচ্ছে বিদেশেও

রায়পুরের ৯ মাছঘাটে কমিশন নামের চাঁদা আদায়

রামগতির চর আবদুল্যায় আশ্রয়কেন্দ্র নেই!

লক্ষ্মীপুরে ওয়াপদা’র জায়গা বেদখলের উদ্দেশ্যে ২৬ বছর পর ইজাড়া গ্রহিতা উন্নয়ন সংস্থার বিরুদ্ধে মামলা

মৃতদের কবর দেওয়া নিয়ে দুশ্চিন্তায় লক্ষ্মীপুরের নদী ভাঙ্গা হাজারো মানুষ

লক্ষ্মীপুরটোয়েন্টিফোর বাংলাদেশ সরকারের তথ্য মন্ত্রনালয়ে অনলাইন নিউজপোর্টাল প্রকাশনার নিবন্ধনের জন্য আবেদনকৃত, তারিখ: 9/12/2015  
 All Rights Reserved : Lakshmipur24 ©2012-2021
Chief Mentor: Rafiqul Islam Montu, Editor & Publisher: Sana Ullah Sanu.
Sopna Monjil (Ground Floor), Goni Headmaster Road, Lakshmipur, Bangladesh.
Ph:+8801794 822222, WhatsApp , email: news@lakshmipur24.com