সব কিছু
লক্ষ্মীপুর শুক্রবার , ৬ই ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং , ২১শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ , ৮ই রবিউস-সানি, ১৪৪১ হিজরী

ইতিহাসের ভয়াবহ প্রাণঘাতী ঘূর্ণিঝড় বাংলাদেশে: জাতিসংঘ

ইতিহাসের ভয়াবহ প্রাণঘাতী ঘূর্ণিঝড় বাংলাদেশে: জাতিসংঘ

১৯৭০ সালের ১২ নভেম্বর বাংলাদেশে সংঘটিত ঘূর্ণিঝড়টি পৃথিবীর সর্বকালের ইতিহাসে সবচেয়ে ভয়ংকর প্রাণঘাতী ঝড় হিসেবে ঘোষণা করেছে জাতিসংঘ। ২০১৭ সালের ১৮ মে জাতিসংঘের বিশ্ব আবহাওয়া সংস্থা (ডব্লিউএমও) বিশ্বের পাঁচ ধরনের ভয়াবহ প্রাণঘাতী আবহাওয়া ঘটনার শীর্ষ তালিকা প্রকাশ করে।

তালিকার সবার শীর্ষ প্রাণঘাতী ঘটনা হিসেবে ১৯৭০ সালের ১২ নভেম্বর তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তান তথা বর্তমান বাংলাদেশের উপকূল অঞ্চলের ওপর দিয়ে বয়ে যাওয়া এ ঝড়টি স্থান পায়। জাতিসংঘের বিশ্ব আবহাওয়া সংস্থা বলেছে পৃথিবীর সর্বকালের ইতিহাসে সবচেয়ে ভয়ংকর প্রাণঘাতী ঝড় ছিল এটি।

এতে বলা হয়েছে, ১৯৭০ সালের ১২ নভেম্বর সন্ধ্যা থেকে ১৩ নভেম্বর ভোর পর্যন্ত বাংলাদেশের (তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তান) উপকূল অঞ্চলে সর্বকালের প্রাণঘাতী ঘূর্ণিঝড়টি আঘাত হানে। ঘূর্ণিঝড়টি নাম ছিল ”সাইক্লোন ভোলা”। সরকারি হিসেবে এতে তিন থেকে পাঁচ লাখ মানুষ মারা যাওয়ার কথা বলা হয়েছিল । তবে বেসরকারি হিসেবে মৃত্যের সংখ্যা ছিল ১০ লাখেরও বেশি।

ডব্লিউএমওর এ প্রতিবেদন থেকে দেখা যায়, বিশ্বের আরো ভয়াবহ প্রাণঘাতী প্রাকৃতিক দুর্যোগের ঘটনা ঘটেছে তার আগের শতাব্দীতে। আবহাওয়া ঝুঁকির পূর্বাভাসের সতর্কতা উন্নত করার প্রয়োজনীয়তা তুলে ধরার জন্য সর্বকালের প্রাণঘাতী আবহাওয়া ঘটনাগুলোর এ চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে বলে জানিয়েছে জাতিসংঘের এ সংস্থাটি।

এদিকে এ ঝড়ে সবচেয়ে বেশি প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে বাংলাদেশের বর্তমান ভোলা এবং তৎকালীন নোয়াখালী ( নোয়াখালী-লক্ষ্মীপুর) উপকূলে।

দিনটি কে জাতীয় এবং আর্ন্তজাতিক ভাবে উপকূল দিবস হিসেবে ঘোষণা করার দাবি জানিয়ে বাংলাদেশের উপকূল অঞ্চল ঘুরে কাজ করা সাংবাদিক রফিকূল ইসলাম মন্টুর উদ্যোগে ২০১৭ সাল থেকে  এ দিন দেশের উপকূল অঞ্চলে বেসরকারি ভাবে উপকূল দিবস পালনের কর্মসূচী গ্রহন করা হয়।

উপকূল দিবস পালনের কর্মসূচীটি হচ্ছে, প্রতিবছর এ দিন ১৯৭০ সালের ঝড়ে উপকূলের নিহতদের স্মরণে স্মরণসভা, দোয়া, প্রার্থনাসহ নানা আয়োজন করা।

প্রতিবছর উপকূলীয় অঞ্চলের সকল জেলা এবং উপজেলায় অবস্থিত নানা  স্থানীয় সংগঠন, সাংবাদিক সংগঠন, স্থানীয় সংবাদ মাধ্যম এবং স্থানীয়রা দিনটি কে উপকূল দিবস হিসেবে পালন করবে। পাশাপাশি সরকারের নিকট এ দিনকে উপকূল দিবস ঘোষনার দাবি জানাবে। এতে করে উপকূলীয় অঞ্চলের ঝুঁকির দিকগুলো এবং এ অঞ্চলের ‍উন্নয়নের বিষয়গুলো সবার নজরে আসবে।

এ সংবাদটি অনুবাদ করা হয়েছে নিম্নোক্ত তথ্য সূত্র থেকে:

বিশ্ব আবহাওয়া সংস্থা

আল জাজিরা

ইউএসটুডে 

স্কাই ওয়েদার

জাতি সংঘ

এ বিষয়ে আরো জানতে পড়ুন:

ভয়ংকর ১২ নভেম্বর: উপকূলের কেয়ামত

১২ নভেম্বর হোক ‘উপকূল দিবস’

১২ নভেম্বর কে উপকূল দিবস ঘোষণা চায় লক্ষ্মীপুর নোয়াখালীবাসি (ভিডিওসহ)

#12November1970

সাইক্লোন ভোলা আরও সংবাদ

একটি দিবসের গল্প

উপকূল মন্ত্রনালয় গঠনের দাবি রায়পুরবাসীর

উপকূল দিবস চান রামগতির মেঘনাপাড়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা

১২ নভেম্বরকে উপকূল দিবসের দাবিতে কমলনগরে র‌্যালি ও সভা

লক্ষ্মীপুর সরকারি কলেজে উপকূল দিবস পালিত

১২ নভেম্বর ঢাকাসহ উপকূলের ৬০ স্থানে তৃতীয়বারের মত পালিত হবে ‘উপকূল দিবস’

লক্ষ্মীপুরটোয়েন্টিফোর মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন  
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত লক্ষ্মীপুরটোয়েন্টিফোর ডটকম ২০১২ - ২০১৯
সম্পাদক ও প্রকাশক: সানা উল্লাহ সানু
রতন প্লাজা (৩য় তলা) , চক বাজার, লক্ষ্মীপুর-৩৭০০
ফোন: ০১৭৯৪-৮২২২২২,ইমেইল: [email protected]