সব কিছু
facebook lakshmipur24.com
লক্ষ্মীপুর শনিবার , ১৬ই জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ২রা মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ , ৩রা জমাদিউস সানি, ১৪৪২ হিজরি
হাতিরঝিল ফ্লাইওভারে সিএনজিতে হত্যা করা মিজানের বাড়ি লক্ষ্মীপুর - Lakshmipur24.com

হাতিরঝিল ফ্লাইওভারে সিএনজিতে হত্যা করা মিজানের বাড়ি লক্ষ্মীপুর

0
Share

হাতিরঝিল ফ্লাইওভারে সিএনজিতে হত্যা করা মিজানের বাড়ি লক্ষ্মীপুর

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় ‘এশিয়ান ইউনিভার্সিটি অফ বাংলাদেশের’ শিক্ষার্থী। তাঁর গ্রামের বাড়ি লক্ষ্মীপুরের রায়পুর উপজেলার কেরোয়া ইউনিয়নের মীরগঞ্জ বাজার সংলগ্ন সবিলপুর গ্রামে। মিজানুর রহমান মিজানকে (২৫) সিএনজিতে হত্যা করে তিন ছিনতাইকারী। এরপর নিরাপদ জায়গা মনে করে রাজধানীর হাতিরঝিল ফ্লাইওভারে লাশটি ফেলে যায় তারা। হত্যাকাণ্ডে জড়িত তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে হাতিরঝিল থানা পুলিশ। ঘটনার সঙ্গে সিএনজি চালকও জড়িত বলে জানা গেছে।

গত ৬ জানুয়ারি মধ্যরাতে হাতিরঝিল সংলগ্ন কারওয়ান বাজার রেলক্রসিংয়ের ফ্লাইওভার থেকে মিজানের রক্তাক্ত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। তার গ্রামের বাড়ি লক্ষ্মীপুরের সবিলপুর এলাকায়। তার বাবার নাম আমির হোসেন। এ ঘটনায় হাতিরঝিল থানায় নিহতের ভাই আরিফ হোসেন বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা করেন। মামলাটি পুলিশ তদন্ত করছে।
তদন্ত সংশ্লিষ্ট পুলিশের এক কর্মকর্তা বলেন, মিজান লেখাপড়ার পাশাপাশি বনানীর একটি ফোর স্টার হোটেলে সিনিয়র ওয়েটার হিসেবে চাকরি করতেন। ৫ জানুয়ারি দুপুর ২টা থেকে রাত ১১টা পর্যন্ত হোটেলে ডিউটি করে শেওড়ার বাসার দিকে রওনা হন। তিনি সিএনজিতে ওঠার পর দুই ছিনতাইকারী সিএনজিতে উঠে পড়ে। তার সঙ্গে থাকা মোবাইল ফোন, মানিব্যাগ ও ব্যাংকের এটিএম কার্ড অস্ত্র ঠেকিয়ে নিয়ে যায়। এ সময় তাদের মধ্যে ধস্তাধস্তি হয়। সিএনজি হাতিরঝিল এলাকায় ঢুকে ফ্লাইওভারে ওঠে। ধস্তাধস্তির একপর্যায়ে ছিনতাইকারীরা তাকে গামছা দিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে। পরে তাকে ফ্লাইওভারে ফেলে চলে যায়।
ছিনতাইকারীরা তার মোবাইল ফোন, এটিএম কার্ড নিয়ে যায়। এরপর পথচারীদের কাছে খবর পেয়ে পুলিশ রাত ১টার দিকে কারওয়ান বাজার রেলক্রসিং বরাবর জায়গা থেকে মিজানের লাশ উদ্ধার করে। ভোররাতে মিজানের ভাইয়েরা খবর পেয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে গিয়ে লাশ শনাক্ত করেন। ৬ জানুয়ারি সকালে মিজানের ভাই আরিফ হোসেন বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। হাতিরঝিল থানা পুলিশ ইতোমধ্যে তিন ছিনতাইকারীকে গ্রেপ্তার করেছে। তারা মিজানকে হত্যার পর তার মোবাইল ফোন ও টাকা নিয়ে পালিয়েছিল। এই চক্রটি পেশাদার ছিনতাইকারী বলে জানিয়েছে পুলিশ।
তদন্ত সংশ্লিষ্ট ওই কর্মকর্তা আরও বলেন, আমরা নিহত মিজানের মোবাইল ফোনটি উদ্ধার করেছি। আসামিদের বুধবার আদালতে নেওয়া হবে। তবে আসামিদের নাম প্রকাশ করেননি তিনি। ছিনতাইকারীরা ফ্লাইওভারকে লাশ ফেলার নিরাপদ জায়গা মনে করে সেখানে ফেলে পালিয়ে যায়।

লক্ষ্মীপুর সংবাদ আরও সংবাদ

এডভোকেট আবদুস সাত্তার পালোয়ানের মা আর বেঁচে নেই

কমলনগরে স্মার্ট এনআইডি কার্ড কোন ইউনিয়নে কখন বিতরণ

কমলনগরে জেলা প্রশাসকের মতবিনিময় সভা

রামগঞ্জ | হেল্পিং হ্যান্ড বাংলাদেশ’র বই ও কম্বল উপহার

লক্ষ্মীপুর | ১ মাসেও খোঁজ মেলেনি হেফজ বিভাগের শিশু ছাত্র ইব্রাহীমের

অনিরাপদ যানই একমাত্র ভরসা রামগতিবাসীর !

লক্ষ্মীপুরটোয়েন্টিফোর মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন  
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত : লক্ষ্মীপুরটোয়েন্টিফোর ( © ২০১২-২০২০)
সম্পাদক ও প্রকাশক: সানা উল্লাহ সানু, উপদেষ্টা সম্পাদক: রফিকূল ইসলাম মন্টু ।
রতন প্লাজা(৩য় তলা), চক বাজার, লক্ষ্মীপুর-৩৭০০।
ফোন: ০১৭৯৪-৮২২২২২, WhatsApp , ইমেইল: news@lakshmipur24.com