সব কিছু
লক্ষ্মীপুর বৃহস্পতিবার , ২৪শে অক্টোবর, ২০১৯ ইং , ৯ই কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ , ২৪শে সফর, ১৪৪১ হিজরী

লক্ষ্মীপুরে যুদ্ধাহত আবুল খায়েরের মুক্তিযোদ্ধার স্বীকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা

লক্ষ্মীপুরে যুদ্ধাহত আবুল খায়েরের মুক্তিযোদ্ধার স্বীকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা

 

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি. স্বাধীনতার ৪৫ বছর পার হলো লক্ষ্মীপুরে যুদ্ধাহত আবুল খায়ের ওরফে মহরম আলীর মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে স্বীকৃতি পায়নি আজো। স্বীকৃতির জন্য ঘুরছে দ্বারে দ্বারে। বৃদ্ধ বয়সে ৩ ছেলে ৩ মেয়েসহ ৭ জনের সংসার নিয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছেন রনাঙ্গনে যুদ্ধে অংশ নেয়া এ যুদ্ধাহত মহরম আলী। মুক্তিযোদ্ধার স্বীকৃতি পেতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ চেয়েছেন তিনি।

যুদ্ধাহত আবুল খায়ের ওরফে মহরম আলী বুধবার সকালে জেলা মুক্তিযোদ্ধা কার্যালয়ের সামনে সাংবাদিকদের জানান,লক্ষ্মীপুর পৌরসভার বাঞ্চানগর গ্রামে তার জন্ম। তার বাবা ছিলেন হাবিবুর রহমান মিয়া। ২৭ বছর বয়সে টগবগে যুবক ছিলেন এ আবুল খায়ের ওরফে মহরম আলী। ১৯৭১সনে পাক বাহিনীর অত্যাচার ও অবিচার দেখে দেশ মাতৃকার টানে শিশু সন্তান ও স্ত্রী ঘরে রেখে নাম লেখান মুক্তিযোদ্ধোর খাতায়। সহযোদ্ধাদের সাথে অংশ নেয় মুক্তিযদ্ধে। একই বছরে ২৫ মার্চ থেকে ২৯ মার্চ পর্যন্ত ১৫দিন জয়নাল আবেদিন কমান্ডারের নেতৃত্ব লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার বসুরহাট ঈদগাঁ মাঠে গ্রেনেড ট্রেনিং.রাইফেল ও বাশেঁর লাঠির ট্রেনিং নেন। এরপর রফিকুল হায়দার ও সামছুল ইসলামের নেতৃত্বে মজুপুর, চররুহিতা, বিজয়নগর ও মাদাম ব্রীজসহ বেশ কযেকটি স্থানে পাক হানাদার বাহিনীর সাথে সম্মুখযুদ্ধ হয়। এতে বেশ কয়েকজন সহযোদ্ধা হতাহত হয়। এসময় তিনিও আহত হন। তারপরও পিছুপা হননি এ যুদ্ধাহত আবুল খায়ের ওরফে মহরম আলী। যুদ্ধ চালিয়ে গিয়েছেন। লক্ষ্মীপুর শহরে নিজ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ভাংচুর ও লুটপাট করে নিয়ে যায় হানাদার বাহিনী। এরপর নোয়াখালীর ২ নং সেক্টরে মুক্তিযদ্ধ চালাকালীন সময়ে মুনছুর আহমদ,পঞ্চু বাবু,কাজল কান্তি দাস,রামগতির পিপি তাহের,দিলীপ কুমার,তাপন চন্দ্র,মোবারক খলিফা ও আলী আহমদের সাথে মশার্ল কোর্টে সাজা হয় এ আবুল খায়ের ওরফে মহরম আলীরও। এরপর রফিকুল হায়দারের নেতৃত্বে সবাই অস্ত্র জমা দেন। কিন্তু স্বাধীনতার ৪৫ বছর পার হলেও মুক্তিযোদ্ধার স্বীকৃতি মিলেনি আজোও। সংসারের সকলকে দুবেলা ঠিকমত ফেটভরে খেতে দিতে পারছেন না। একাধিক বার যাচাই-বাছাই করা হয় ঠিকই। কিন্তু স্বীকৃতি দেয়া হয়না বলে ক্ষোভ প্রকাশ করেন তিনি। দ্রুত যাচাই বাছাই করে মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে স্বীকৃতি পেতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ চেয়েছেন এ যুদ্ধাহত আবুল খায়ের। এ দিকে আবুল খায়ের ওরফে মহরম আলী মুক্তিযদ্ধে অংশ নিয়েছেন বলে জানিয়েছেন লক্ষ্মীপুর-৩ আসনের সংসদ সদস্য ও মুক্তিযোদ্ধা একেএম শাহজাহান কামালসহ অনেকে।

লক্ষ্মীপুর সংবাদ আরও সংবাদ

দত্তপাড়ার মিরন মেম্বার হত্যার রহস্য উম্মোচন: লক্ষ্মীপুর জেলা পুলিশ

রামগঞ্জে কিশোরীকে আটকিয়ে ধর্ষণ: আটক ২

রামগতিতে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে শ্রমিকের মৃত্যু

১৭ ‘বাবা’ চালাচ্ছেন রামগঞ্জ ছাত্রলীগ

লক্ষ্মীপুরের অন্ধকার গ্রাম আন্দারমানিকের একমাত্র বিদ্যালয়টির জাতীয়করণ চায় গ্রামবাসী

লক্ষ্মীপুরে ছাত্রলীগের সম্মেলনে হাজারো নেতাকর্মী

লক্ষ্মীপুরটোয়েন্টিফোর মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন  
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত লক্ষ্মীপুরটোয়েন্টিফোর ডটকম ২০১২ - ২০১৯
সম্পাদক ও প্রকাশক: সানা উল্লাহ সানু
রতন প্লাজা (৩য় তলা) , চক বাজার, লক্ষ্মীপুর-৩৭০০
ফোন: ০১৭৯৪-৮২২২২২,ইমেইল: ne[email protected]