সব কিছু
লক্ষ্মীপুর রবিবার , ১৫ই ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং , ৩০শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ , ১৭ই রবিউস-সানি, ১৪৪১ হিজরী

কমলনগরে প্রাথমিকের পরীক্ষা দিচ্ছে অষ্টম-নবম শ্রেণির শিক্ষার্থীরা

কমলনগরে প্রাথমিকের পরীক্ষা দিচ্ছে অষ্টম-নবম শ্রেণির শিক্ষার্থীরা

লক্ষ্মীপুরের কমলনগরে প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী (পিইসি) পরীক্ষায় অষ্টম-নবম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের অংশ নেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপজেলার শহীদনগর বালিকা উচ্চবিদ্যালয় কেন্দ্রে মাধ্যমিক বিদ্যালয়পড়ুয়া ১১ জন শিক্ষার্থী আনন্দ স্কুলের পরীক্ষার্থী হয়ে এ পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছেন।
উপজেলা শিক্ষা অফিস সূত্রে জানা যায়, চরলরেন্স ইউনিয়নের ১১টি প্রাথমিক বিদ্যালয়, দু’টি কিন্ডারগার্টেন ও নয়টি আনন্দ স্কুলের ৫৫০ জন শিক্ষার্থী শহীদনগর বালিকা উচ্চবিদ্যালয় কেন্দ্রে প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছেন। এর মধ্যে নয়টি আনন্দ স্কুল থেকে অংশ নিচ্ছেন ১৫২ জন পরীক্ষার্থী।
মঙ্গলবার বাংলাদেশ ও বিশ্ব পরিচয় পরীক্ষা চলাকালে শহীদনগর বালিকা উচ্চবিদ্যালয় কেন্দ্রে গিয়ে দেখা যায়, স্থানীয় চরলরেন্স উচ্চবিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির মানবিক শাখার ছাত্র আবির মাহমুদ (পিইসি রোল-৮৪৯), অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী তানিয়া আক্তার (পিইসি রোল-৮৫২), সপ্তম শ্রেণির ছাত্রী সুমনা আক্তার ও আকলিমা আক্তারসহ ওই বিদ্যালয়ের বিভিন্ন শ্রেণির ১১ জন শিক্ষার্থী পিইসি পরীক্ষা দিচ্ছেন। এদের মধ্যে আবির ও তানিয়া সিরাজুল ইসলাম এমপি আনন্দ স্কুল, সুমনা ও আকলিমা ঈমান আলী প্রফেসরের বাড়ির দরজা আনন্দ স্কুলের হয়ে পরীক্ষা দিচ্ছেন বলে জানান।
এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে চরলরেন্স উচ্চবিদ্যালয়ের একাধিক শিক্ষক ওইসব পরীক্ষার্থীরা তাদের শিক্ষার্থী বলে শনাক্ত করেন।
শহীদনগর বালিকা উচ্চবিদ্যালয় কেন্দ্রের সচিব ও বিদ্যালয়টির প্রধান শিক্ষক আবুল কালাম আজাদ বলেন, ‘প্রবেশপত্রের নাম ও ছবির সঙ্গে মিল থাকায় ওই সব শিক্ষার্থীরা পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার সুযোগ পাচ্ছে। এ ক্ষেত্রে আমার করার কিছু নেই। মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের কীভাবে পিইসি পরীক্ষায় রেজিস্ট্রেশন করা হয়েছে সেটা কর্তৃপক্ষই ভালো জানেন।’
কেন্দ্রের দায়িত্বপ্রাপ্ত ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ও সহকারি উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মো. জহিরুল ইসলাম জানান, বিষয়টি তার জানা ছিলো না; খোঁজ-খবর নিয়ে অভিযোগের সত্যতা পেলে ওই পরীক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিবেন।
আনন্দ স্কুলের উপজেলার ট্রেনিং কো-অর্ডিনেটর মো. নাজিম উদ্দিন জানান, এ ধরনের অভিযোগ পেয়ে তারা পরীক্ষা কেন্দ্রগুলো পরিদর্শন করে ভুয়া পরীক্ষার্থী শনাক্তের কাজ করছেন। ওই কেন্দ্রে এ ধরনের পরীক্ষার্থী পাওয়া গেলে শিক্ষার্থীসহ আনন্দ স্কুলের শিক্ষকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে তিনি জানান।
উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা এটিএম এহছানুল হক চৌধুরী বলেন, ‘বিষয়টি জানতে পেরে তাৎক্ষণিকভাবে এ ব্যাপারে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য আমি সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দিয়েছি।’

শিক্ষাঙ্গন আরও সংবাদ

লক্ষ্মীপুর সরকারি কলেজে অনার্স কোর্স সমাপনী উৎসব

কমলনগরে বিএমজিটিএ’র সম্মেলন

শুধুমাত্র পাঠ্য বই পড়ে প্রকৃত শিক্ষা অর্জন সম্ভব নয়: লক্ষ্মীপুর জেলা প্রশাসক

লক্ষ্মীপুরে ‘ক্যাডেট কোচিং’ এর যাত্রা

রামগতিতে মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির বার্ষিক সাধারণ সভা

কমলনগরে প্রাথমিকের পরীক্ষার সেই ভুয়া পরীক্ষার্থীদের বহিষ্কার

লক্ষ্মীপুরটোয়েন্টিফোর মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন  
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত লক্ষ্মীপুরটোয়েন্টিফোর ডটকম ২০১২ - ২০১৯
সম্পাদক ও প্রকাশক: সানা উল্লাহ সানু
রতন প্লাজা (৩য় তলা) , চক বাজার, লক্ষ্মীপুর-৩৭০০
ফোন: ০১৭৯৪-৮২২২২২,ইমেইল: [email protected]