ফেনীতে সড়ক দূর্ঘটনায় লক্ষ্মীপুরের একই পরিবারের ৫জনসহ নিহত ৬, আহত-৮

নিজস্ব প্রতিনিধি: কাতার প্রবাসী এক স্বজন চট্টগ্রাম শাহ আমানত বিমান বন্দর থেকে বাড়িতে আনতে গিয়ে মর্মান্তিক এক সড়ক দুর্ঘটনায় একই পরিবারের ৫ সদস্যসহ ৬জন নিহত হয়েছেন। এ সময় আহত হয়েছে আরো ৮জন। নিহত ও আহত প্রত্যেকের বাড়ির লক্ষ্মীপুর জেলার সদর এবংরায়পুর উপজেলায়। সোমবার (২০ আগষ্ট) ভোর ৩টার দিকে ফেনী জেলার মুহুরীগঞ্জ এলাকায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে গরুর ট্রাকের সঙ্গে সংঘর্ষে  মাইক্রোবাসে থাকা যাত্রীদের হতাহতের ঘটনা ঘটে।

একই পরিবারের নিহত সদস্যরা

আহতদের উদ্ধার করে ফেনী জেলা সদর হাসপতাল ও মীরসরাইয়ের বারইয়ার হাট বেসরকারী ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন হাইওয়ে মুহুড়ীগঞ্জ পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. মাহবুব আলম।

নিহতরা হলেন, মাইক্রোচালক লক্ষীপুরের রায়পুর উপজেলার চরমোহনা গ্রামের সিরাজ মোল্লার ছেলে শরিফ রহমান (৪২), চন্দ্রগঞ্জ থানার মান্দারী ইউনিয়নের মটবী গ্রামের  নুর মোহাম্মদের মেয়ে জাহানারা বেগম (৫০), রুমি (৩৫), রুমন (২), শুভ (৮) ও পপি (১৩)।

ঘাতক ট্রাক

আহতরা হলেন, একই উপজেলার কৃষ্ণপুর গ্রামের চৌধুরী মিয়ার ছেলে আব্বাস উদ্দিন (৩৭), লামছড়ি গ্রামের দেলোয়ার হোসেনের ছেলে রিয়াজ (২৪), মান্দারী গ্রামের নুরুজ্জামানের ছেলে রাজু (২২), আবুল কালামের ছেলে শাহ আলম (২২) ও শাহানা আক্তার (৫০)। বাকি ৩ জনের পরিচয় জানা যায়নি।

ক্ষতিগ্রস্থ মাইক্রোবাস

ফেনী ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্সের সিনিয়র স্টেশন অফিসার মো. কবির হোসেন জানান, আজ ভোর ৩টার দিকে লক্ষীপুর থেকে চট্টগ্রাম বিমানবন্দর অভিমুখী একটি মাইক্রোবাস ফেনীর মুহুরীগঞ্জ সুলতানা ফিলিং স্টেশন অতিক্রম করার সময় পেছন থেকে দ্রুতগামী একটি কোরবানীর গরুর ট্রাক সজোরে ধাক্কা দেয়। এতে মাইক্রোবাস ও ট্রাক সড়কের পাশে খাদে পড়ে যায়।

খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস  দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে উদ্ধার অভিযান শুরু করে দুই শিশু ও তিন নারীসহ ৬ জনকে নহত অবস্থায় এবং ৮ জনকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে। আহত ট্রাক চালক, সহকারী ও গরুর মালিককে উদ্ধার করে বারইয়ারহাট একটি বেসরকারী ক্লিনিকে ভর্তি করেছে স্থানীয়রা।

ফায়ার সার্ভিস মাইক্রোবাস যাত্রীদের মধ্যে আহতদের উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য ফেনী জেলা সদর হাসপাতালে প্রেরণন করে। নিহতদের লাশ ছাগলনাইনা থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। মরদেহগুলো ফেনী জেলা সদর হাসপতাল মর্গে প্রেরণের প্রস্তুতি চলছে।