লক্ষ্মীপুর জেলাব্যাপী ঈদের বড় জামাত কখন কোথায় অনুষ্ঠিত হবে

ঈদগাহ-লক্ষ্মীপুরসানা উল্লাহ সানু: সোমবার মুসলিম বিশ্বের অন্যান্য দেশের সাথে বাংলাদেশেও পালিত হবে ঈদুল আযহা। ঈদুল আযহার দিন মুসল্লিদের প্রধান কাজ জামাতে নামায আদায় এরপরই তারা কোরবানীসহ অন্যান্য কাজগুলো সম্পন্ন করেন।
ইতোমধ্যে জেলার মুসলিম সম্প্রদায় ঈদুল আযহা উদযাপনের জন্য সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছেন।
লক্ষ্মীপুরের ৫টি উপজেলার বিভিন্ন মসজিদ ও ঈদগাহগুলো স্থানীয়দের উদ্যোগে নামাজের জন্য প্রস্তুত করা হয়েছে।
লক্ষ্মীপুরটোয়েন্টিফোর ডটকমের রামগতি, কমলনগর, লক্ষ্মীপুর, রায়পুর, রামগঞ্জ প্রতিনিধি এবং জেলার ইমাম সমিতি থেকে পাওয়া তথ্যে জানান যায় যে, জেলার অধিকাংশ স্থানে এবারের ঈদুল আযহার নামাজ সকাল সাড়ে সাতটা থেকে ১০টার মধ্যেই শেষ হবে বলে আশা প্রকাশ করছেন স্থানীয়রা।
আবার কোন কোন স্থানে ২টি জামাত ও অনুষ্ঠিত হবে বলে নিশ্চিত করেছেন তারা ।

অন্যদিকে প্রশাসনের পক্ষ থেকে ঈদের দিন বাড়তি নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে বলে জানিয়েছেন জেলা পুলিশ সুপার অফিস।

লক্ষ্মীপুর জেলাব্যাপী ঈদুল আযহার নামাজের তথ্য নিয়ে লক্ষ্মীপুরটোয়েন্টিফোর ডটকমের আজকের এই প্রতিবেদন ।

লক্ষ্মীপুর:
এক কালের জেলার সবচেয়ে বড় বতমানেও জেলার দ্বিতীয় বৃহত্তম সদর উপজেলার তেয়ারিগঞ্জের চরমনসা গ্রামের ঐতিহাসিক আমরিতলা ঈদগাহ ময়দানে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত সকাল আটায়। বহু দূর থেকে আগত অনেক মুসল্লি এখানে ঈদের নামাজ আদায় করেন।
জেলা শহরে ঈদুল আজহা’র প্রধান জামাত সোমবার সকাল ৮টায় জেলা কালেক্টরেট ভবন প্রাঙ্গনের ঈদগাহ মাঠে অনুষ্ঠিত হবে। এখানে জেলা প্রশাসকসহ প্রশাসনের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা ও জনপ্রতিনিধিরা নামাজ আদায় করবেন।
অন্যদিকে সামাদ মাঠে অবস্থিত সোনামিয়া ঈদগাহ ময়দান ও তমিজ উদ্দিন ঈদগাহ মাঠেও সকাল ৮টায় ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া মজুচৌধুরীর হাট বাইতুস সাইফ দরবার শরীফ, চন্দ্রগঞ্জ বাজার জামে মসজিদ, নাগেরহাট মসজিদ এবং মান্দারি বড় মসজিদে ঈদের জামাত সকাল ৮টায় অনুষ্ঠিত হবে।
রায়পুর:
জেলার সবচেয়ে বড় জামাত অনুষ্ঠিত হয় রায়পুর উপজেলার হায়দরগঞ্জ তাহেরিয়া আর.এন ফাজিল মাদ্রাসা ময়দানে। প্রতি বছর এখানে ইমামতি করেন চট্টগ্রাম আন্দরকিল্লা শাহী জামে মসজিদের খতিব ও নবী রাসূল (সা.) এর ২৮তম বংশধর আল্লামা সাইয়েদ তাহের আল জাবেরী আল মাদানী । তিনি এ বছর হজে আছেন। একই সময়ে রায়পুর উপজেলার ঈদের জামায়াত অনুষ্ঠিত হবে উপজেলা শহরের বড় মসজিদ প্রাঙ্গন ও রায়পুর নতুন বাজার ঈদগাহ ময়দানে।
কমলনগর:
সকাল সাড়ে ৮টায় কমলনগর উপজেলার ঈদের প্রধান জামায়াত অনুষ্ঠিত হবে উপজেলা সদর হাজিরহাট বাজার জামে মসজিদ প্রাঙ্গনে। এখানে ইমামতি করবেন কাজী মাওলানা গিয়াস উদ্দিন। কমলনগর উপজেলা চেয়ারম্যান এ্যাডভোকট সৈয়দ মোহাম্মদ শামছুল আলম এবং নিবাহী কর্মকর্তা আবদুল আওয়াল এখানে নামাজ আদায় করবেন।
এছাড়া সকাল ৮টায় উপজেলার দ্বিতীয় বৃহত্তম ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে তোরাবগঞ্জ বাজার জামে মসজিদে এখানে ইমামতি করবেন মাওলানা মোঃ মহসিন। অন্যদিকে চর লরেঞ্চ বাজার জামে মসজিদে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে সকাল সাড়ে ৭টায়।
রামগঞ্জ:
রামগঞ্জে ঈদুল আযহার বড় জামাত অনুষ্ঠিত হয় রামগঞ্জ কেন্দ্রিয় জামে মসজিদে। এছাড়া সোনাপুর বড় মসজিদ, রামগঞ্জ উপজেলা ডাকবাংলা মাঠেও উপজেলার বড় জামাত অনুষ্ঠিত হবে।
রামগতি:
আলেকজান্ডার বাজারস্থ রামগতি উপজেলা কমপ্লেক্স জামে মসজিদে ঈদের প্রধান জামাত অনুষ্ঠিত হবে সকাল ৮টায় । এখানে উপজেলা চেয়ারম্যান আবদুল ওয়াহেদ নামাজ আদায় করবেন । তবে শুকনো মৌসুমে এ জামাতটি হয় আলেকজান্ডার পাইলট হাই স্কুল মাঠে। এছাড়া রামগতি বাজার দায়রা বাড়ী জামে মসজিদ, ভেদার ভক্ত জামে মসজিদ এবং কাদের হুজুরের মসজিদেও ঈদের বড় জামাত অনুষ্ঠিত হবে।
সব মিলে জেলার বিভিন্ন স্থানে কমপক্ষে শতাধিক মাঠে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে।

তথ্য সূত্র ছাড়া বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যম এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে লক্ষ্মীপুরটোয়েন্টিফোর ডটকমের কোন সংবাদ কপি করা বিকৃত মানসিকতার পরিচয় বহন করে ।
সুতরাং আমাদের কোন সংবাদ হুবহুব কপি না করে আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন না হয় তথ্য সূত্র উল্লেখ করুন। লক্ষ্মীপুরের ডিজিটাল কন্টেন্ট সমৃদ্ধ করতে সহায়তা করুন।