লক্ষ্মীপুর-নোয়াখালী-ফেনী সফরে ফরিদুন্নাহার লাইলীসহ কেন্দ্রীয় আ.লীগের ৫ নেতা

নিজস্ব প্রতিনিধি: আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনা নিয়ে ফেনী, নোয়াখালী ও লক্ষ্মীপুরে সাংগঠনিক সফরে আসছেন কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের ৫ শীর্ষ নেতাদের একটি প্রতিনিধি দল। এদের মধ্যে রয়েছেন, আওয়ামীলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য আবদুল মতিন খসরু এমপি, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহাবুবুল আলম হানিফ এমপি, সাংগঠনিক সম্পাদক একেএম এনামুল হক শামীম, কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক ফরিদুন্নাহার লাইলী এবং যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক হারুনুর রশিদ।

প্রতিনিধি দল সফরের শুরুতে শুক্রবার (২৬ জানুয়ারি) ফেনী জেলা আওয়ামীগীগের কর্মী সমাবেশে মিলিত হচ্ছেন। জানা যায়, সফররত প্রতিনিধি দলের কেন্দ্রীয় নেতারা দলের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিশেষ নির্দেশনা পৌঁছে দেবেন তৃণমূল নেতাকর্মীদের মাঝে। সফররত প্রতিনিধিদের সঙ্গী আওয়ামী লীগের কৃষি ও সমবায় বিষয়ক কেন্দ্রীয় উপ-কমিটির সদস্য ড. বদরুল হাসান কচি লক্ষ্মীপুরটোয়েন্টিফোর কে জানান, প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনার নির্দেশনা গুলো হচ্ছে, দলের তৃণমূল নেতাকর্মীদের বিভিন্ন সমস্যার কথা শোনা ও ‘ইউনিক ক্যান্ডিডেট’দের  তালিকা তৈরি করা,দলকে শক্তিশালী সংগঠনে পরিণত করা, আগামী নির্বাচনের পরিবেশ তৈরি করা, সরকারের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ড তুলে ধরা।

এছাড়া ‘বিভিন্ন আসনে নেতায় নেতায় কেন দূরত্ব সৃষ্টি হয়েছে তার কারণ ও সমাধানের পথ খুঁজতে কেন্দ্রীয় নেতাদের বলেছেন দলের সভাপতি। একইসঙ্গে বর্তমান সংসদ সদস্যদের মাঝে কার কার তৃণমূল নেতাকর্মীদের দূরত্ব রয়েছে, তাও খুঁজে বের করতে বলেছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি।

এছাড়া আগামী নির্বাচনে দলীয় প্রার্থীর পরাজয়ের কারণ হতে পারে, এমন বেশ কিছু বিষয়ও খুঁজে বের করার নির্দেশনা রয়েছে সাংগঠনিক সফরে থাকা কেন্দ্রীয় নেতাদের প্রতি।

জানা যায়, গত ১২ জানুয়ারি আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, দলের ১৫টি টিম একাদশ সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার আগমুহূর্ত পর্যন্ত সংগঠনের জেলা, মহানগর, উপজেলা, থানা পর্যায়ে সাংগঠনিক সফরে যাবে। এ সময় স্থানীয় আওয়ামী লীগ আয়োজিত বিভিন্ন রাজনৈতিক কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করবে।

ওই বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, নোয়াখালী, লক্ষ্মীপুর, ফেনী জেলাতে এ সকল কাজের দায়িত্ব পেয়েছেন কেন্দ্রীয় নেতা, আব্দুল মতিন খসরু, মাহবুবউল-আলম হানিফ, একেএম এনামুল হক শামীম, ফরিদুন্নাহার লাইলী ও হারুনুর রশীদ।

প্রসঙ্গত এদের মধ্যে কেন্দ্রীয় নেতা ফরিদুন্নাহার লাইলী বিগত সময়ে লক্ষ্মীপুরের রামগতি-কমলনগর আসনে নারী সংসদ সদস্য পদে ছিলেন। জানা যায়, সে সময়ে তার কর্ম চাঞ্চলে এলাকায় ব্যাপক উন্নয়ন হয়। যে কারণে তিনি এ এলাকায়  অত্যন্ত জনপ্রিয়। এলাকার নেতাকর্মী ও স্থানীয় মানুষের নানা সুখ দুঃখে তার উপস্থিতি ও সহযোগিতা এখনো অব্যাহত। এ এলাকার বহু বেকার যুবকের কর্ম সৃষ্টিতে তার রয়েছে অসামান্য অবদান।