রায়পুরে দিনভর নানা আয়োজনে বিজয় দিবস পালন

তাবারক হোসেন আজাদ: সুখী, সমৃদ্ধ, ক্ষুধা ও দারিদ্রমুক্ত বাংলাদেশ গঠনের লক্ষে ডিজিটাল প্রযুক্তির সার্বজনীন ব্যবহার এবং মুক্তিযুদ্ধ এ প্রত্যয়ে লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে ৩শ মুক্তিযোদ্ধা ও প্রয়াত মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সদস্যদেরকে সংবর্ধনা দেয়া হয়েছে । শনিবার দুপুরে মার্চ্চেন্টস একাডেমির মাঠে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে এ সংবর্ধনা দেয়া হয়। এ সময় মুক্তিযোদ্ধাদের নগদ অর্থ ও পুরস্কার দেয়া হয়েছে।
অনুষ্ঠানে ইউএনও শিল্পী রানি রায়ের সভাপত্বিতে ও পল্লী বিদুৎ কর্মকর্তা সুধাষ চন্দ্র রক্ষিতের পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন, উপজেলা চেয়ারম্যান মাষ্টার আলতাফ হোসেন হাওলাদার, পৌর মেয়র হাজী ইসমাইল হোসেন খোকন, ইউএনও শিল্পী রানি রায়, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান এডভোকেট আবুল কালাম আজাদ, সহকারী কমিশনার ভূমি, থানার ওসি একেএম আজিজুর রহমান মিয়া, ওসি (তদন্ত) সোলাইমান হোসেন, আ’লীগ সভাপতি অধ্যক্ষ মামুনুর রশিদ, সাবেক পৌর মেয়র রফিকুল হায়দার বাবুল পাঠান, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার নিজাম উদ্দিন পাঠান, শিক্ষাবিদ সফিউল্ল্যা খান, মুক্তিযোদ্ধা খোরশেদ দেওয়ান প্রমূখ।

এর আগে বিজয় দিবস উপলক্ষে শনিবার (১৬ ডিসেম্বর) ভোর রাত ১২টা ১মিনিটে ৩১ বার তোপধ্বনি দেওয়া হয়। এরপর ভোর ৫টা থেকে ৯টা পর্যন্ত পর্যায়ক্রমে বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও পেশাজীবী সংগঠনের নেতা-কর্মীরা শহীদ বেদিতে (উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গন) পুষ্পাস্তবক অর্পন করেন।

সকাল ৮ টার দিকে রায়পুর মার্চ্চেন্টস একাডেমির মাঠে বীর মুক্তিযোদ্ধা, পুলিশ, আনসার, স্কাউট, বিএনসিসি ও অর্ধ-শতাধিক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের কুচকাওয়াজ ও শারীরিক কসরত অনুষ্ঠিত হয়েছে। কুচকাওয়াজ ও শারীকির কসরত শেষে অংশগ্রহণকারী বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে পুরস্কার দেওয়া হয়। মার্চ্চেন্টস্ একাডেমির শিক্ষার্থীদের আয়োজনে বিভিন্ন পত্রিকায় প্রকাশিত মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে ‘‘মুক্তিযোদ্ধকে জানো’’ লেখা বিভিন্ন দেয়ালিকা অতিথিরা পরিদর্শন করেন। দুপুরে উপজেলা প্রশাসন, মুক্তিযোদ্ধা, পৌরসভা বনাম রায়পুর বাজার ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতি, নাগরিক সামাজ এবং উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গনে মহিলাদের অংশ গ্রহনে ক্রীড়া প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়।
পরে বিজয় চত্বর স্মৃতিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পন করেন- উপজেলা চেয়ারম্যান মাষ্টার আলতাফ হোসেন হাওলাদার, পৌর মেয়র হাজী ইসমাইল হোসেন খোকন, ইউএনও শিল্পী রানি রায়, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান এডভোকেট আবুল কালাম আজাদ, সহকারী কমিশনার ভূমি, থানার ওসি একেএম আজিজুর রহমান মিয়া, ওসি (তদন্ত) সোলাইমান হোসেন, আ’লীগ সভাপতি অধ্যক্ষ মামুনুর রশিদ, সাবেক পৌর মেয়র রফিকুল হায়দার বাবুল পাঠান, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার নিজাম উদ্দিন পাঠান, শিক্ষাবিদ সফিউল্ল্যা খান, মুক্তিযোদ্ধা খোরশেদ দেওয়ান, সমাজসেবা কর্মকর্তা এসএম জোবায়েদ হোসেন,শিক্ষাকর্মকর্তা কামাল হোসেন, সিনিয়র মৎস কর্মকর্তা বেলায়েত হোসেন ও প্রধান শিক্ষক আলমগীর হোসেন প্রমূখ।