এমন হরতাল শত শত দিন হওয়া উচিত

অনলাইন ডেস্ক: বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধি অযৌক্তিক এবং এতে জনজীবন বিপর্যস্ত হবে। বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধি নয় বরং কমানো উচিত। জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে আজ মঙ্গলবার বিকেলে বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে বিকল্প ধারা, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জেএসডি ও নাগরিক ঐক্য আয়োজিত সমাবেশে বক্তারা এ কথা বলেন। দাম বাড়ানোর প্রতিবাদে ৩০ নভেম্বর সিপিবি-বাসদসহ কয়েকটি বাম দলের হরতালে সমর্থন জানিয়ে বক্তারা বলেন, এ ধরনের হরতাল শত শত দিন হওয়া উচিত।

অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে বিকল্প ধারা বাংলাদেশের সভাপতি এ কিউ এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী বলেন, ‘মৃত্যুর আগে সুন্দর বাংলাদেশ দেখে যেতে চাই। লুটপাটের বাংলাদেশ নয়।’ সরকারের সব পর্যায়ে লুটপাত চলছে উল্লেখ করে তিনি সরকারকে ‘লুটেরা সরকার’ বলেন। বিদ্যুতের দাম বাড়ানো নিয়ে বলেন, এ বৃদ্ধির কারণে সবকিছুর দাম বেড়ে যাবে। তিনি আরও বলেন, বুকে হাত দিয়ে এ সরকার বলতে পারবে না গুম, খুন, হত্যা, ধর্ষণ আগের চেয়ে কমেছে।

জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে মঙ্গলবার বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে বিকল্প ধারা, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জেএসডি ও নাগরিক ঐক্য এক সমাবেশের আয়োজন করে। দাম বাড়ানোর প্রতিবাদে ৩০ নভেম্বর সিপিবি-বাসদসহ কয়েকটি বাম দলের হরতালে সমর্থন জানানো হয় সমাবেশে।

জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জেএসডি সভাপতি আ স ম আবদুর রব বলেন, ‘দেশ এখন জাহান্নামের দোরগোড়ায়। রাতে ঘরে থেকেও মানুষ নিরাপদ নয়।’ তিনি বলেন, বিদ্যুতের দাম বাড়িয়ে সরকার মানুষের গায়ে আগুন ধরিয়ে দিয়েছে। দাম না কমালে সরকারের প্রতি মৃত্যু পরোয়ানা জারি হবে। বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধির প্রতিবাদে বাম দলগুলোর ডাকা হরতালের প্রতি সমর্থন জানান তিনি।

উল্লেখ্য, ২৩ নভেম্বর বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন (বিইআরসি) প্রতি ইউনিট বিদ্যুতের দাম গড়ে ৩৫ পয়সা বা ৫ দশমিক ৩ শতাংশ বাড়ানোর ঘোষণা দিয়েছে। এ সিদ্ধান্ত এ বছরের ডিসেম্বর থেকে কার্যকর হবে।

সিপিবি, বাসদ ও গণতান্ত্রিক বাম মোর্চার ডাকা হরতালকে সমর্থন করে নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, হরতালের রাজনীতিকে সমর্থন না করলেও এসব পরিপ্রেক্ষিতে হরতাল শত শত দিন হওয়া উচিত। বিদ্যুতের দাম নিয়ে গণশুনানি প্রসঙ্গে মান্না বলেন, ‘সরকার গণশুনানির নামে একটা ফাজলামি করে। কিন্তু কারও কথা শোনে না।’ দাম কমানোর আহ্বান জানিয়ে বলেন, হাতে আরও দু-এক দিন সময় আছে। সরকার যেন দাম কমানোর ঘোষণা দেয়।

:প্রথম আলোর সৌজন্যে: