রামগঞ্জে ১৬ ঘণ্টা লোডশেডিং

জাকির হোসেন মোস্তান,রামগঞ্জ: রামগঞ্জে পল্লী বিদ্যুতের ঘন ঘন লোডশেডিংয়ের কারণে ৪৩ হাজার বিদ্যুৎ গ্রাহক অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে। অচল হয়ে পড়েছে অর্ধশতাধিক শিল্প-কারখানা, স্থবিরতা নেমে এসেছে ব্যবসা বানিজ্যে। ছাত্রছাত্রী, শিশু ও বৃদ্ধরা হচ্ছে বেশি দুর্ভোগের শিকার । দৈনিক ১৬ ঘন্টা লোডশেডিংয়ের কারণে স্বাভাবিক জীবনযাত্রা অচল হয়ে পড়েছে।

মঙ্গলবার দুপরে সাংবাদিক সমিতির অফিসে এসে গ্রাহকরা জানান, ঘন ঘন লোডশেডিংয়ের কারণে বসতবাড়িতে ব্যবহৃত ফ্রিজ, টেলিভিশন, ফ্যানসহ বিদ্যুৎ চালিত অসংখ্য যন্ত্রপাতি নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। পল্লিবিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষ স্থাণীয় কয়েকজন নেতাকে ম্যানেজ করে মাসের পর মাস অধিক লোডশেডিং করে সাধারন গ্রাহকদের আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ করছেন।

ব্যবসায়ী রানা, শিক্ষক সেলিম, ছাত্র ইসান, ব্যাংকার আশরাফসহ অনেকেই জানান, আন্দোলন ও করবনা, ভাংচুর ও করব না শুধু এই দূর্নীতিগ্রস্থ ডিজিএম এর অপসরন চাই।

এ ব্যাপারে রামগঞ্জ পল্লী বিদ্যুতের ডিজিএম বেলায়েত হোসেন জানান, ৪৩ হাজার গ্রাহকের জন্য ১২ মেগাওয়াট বিদ্যুতের চাহিদার স্থলে সরবরাহ দেয়া হচ্ছে ৪ মেগাওয়াট বিদ্যুত। সে কারণে ঘন ঘন লোডশেডিং করতে হচ্ছে।