রামগঞ্জে বাল্য বিয়ে প্রস্তুতির দায়ে মা-কনে আটক

নিজস্ব প্রতিনিধি: রামগঞ্জে বাল্য বিয়ের প্রস্তুতির দায়ে ৯ম শ্রেণির ছাত্রী জান্নাতুল ফেরদাউস ও তার মা খোজেদা বেগমকে আটক করেছে। এ সময় ছাত্রীর পিতা জাহাঙ্গীর আলম ও বরের পক্ষের লোকজন পালিয়ে যায়।

বুধবার দুপুরে উপজেলার নোয়াগাঁও গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানায়, উপজেলার নোয়াগাঁও গ্রামের কামার বাড়ির জাহাঙ্গীর আলমের স্থানীয় নোয়াগাঁও জনকল্যাণ উচ্চ বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেণির ছাত্রী জান্নাতুল ফেরদাউসের এর বিয়ে পারিবারিক ভাবে চাটখিল উপজেলাতে ঠিক হয়। বিয়ে ঠিক করার পর নোয়াগাঁও ইউপি চেয়ারম্যানের কাছে জন্ম নিবন্ধনে বয়স বাড়ানোর আবেদন করে ওই ছাত্রীর পরিবার। চেয়ারম্যান জন্ম নিবন্ধন সনদ পরিবর্তন না করায় ক¤িপউটারে নকল জন্ম নিবন্ধন কার্ড তৈরী করে বুধবার বিয়ের কাজ শুরু করে।

দুপুরে রামগঞ্জ উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) কর্মকর্তা রফিকুল হক, থানার এস আই রেজাউল করিমসহ পুলিশ বিয়ে বাড়িতে হাজির হয়ে ছাত্রী জান্নাতুল ফেরদাউস ও তার মা খোদেজা বেগমকে আটক করে।

এ ব্যাপারে ভ্রাম্যমান আদালতের ম্যাজিস্ট্রেট রফিকুল হক বলেন,বাল্য বিয়ে আইনে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।