লক্ষ্মীপুরে শিশু যৌন নির্যাতনের অভিযোগে আটক ইমাম কারাগারে

নিজস্ব প্রতিনিধি, রায়পুর: লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে ৮ বছরের শিশুকে (বলাৎকার) নির্যাতনের অভিযোগে আব্দুস সোবহান (৬৫) নামে এক মসজিদের ইমামকে আটক করে কারাগারে পাঠিয়েছে থানা পুলিশ। বৃহস্পতিবার বিকেলে উপজেলার কেরোয়া ইউনিয়নের মীরগঞ্জ বাজার সংলগ্ন সবিলপুর সাজীবাড়ী জামে মসজিদের মক্তবে এই ঘটনা ঘটে। অভিযুক্ত আব্দুস সোবহান রায়পুর উপজেলার চরআবাবিল ইউনিয়নের হায়দরগঞ্জ গ্রামের আব্দুল কুদ্দুস এর ছেলে। ঘটনার দিন রাতে ক্ষতিগ্রস্ত শিশুর মা লাভলী আক্তার বাদী হয়ে লক্ষ্মীপুর সদর থানায় অভিযুুক্ত আব্দুস সোবহানকে আসামী করে শিশু নির্যাতন আইনে মামলা করেছেন।

মামলার এজাহারে জানা যায়, আব্দুস সোবহান প্রায় ৪ মাস আগে সদর উপজেলার হামছাদী ইউনিয়নের সাজীবাড়ী জামে মসজিদের ইমাম হিসেবে যোগদান করেন। ঘটনার সময় শিশুটি মক্তবে একা পড়তে গেলে আব্দুস সোবহান শিশুটির উপর যৌন নির্যাতন করেন। শিশুটি রক্তাক্ত অবস্থায় বাড়ী গিয়ে তার মার কাছে ঘটনাটি জানায়। পরে আহত শিশুটিকে সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হয়। এ ঘটনায় এলাকাবাসী উত্তেজিত হয়ে রাতে অভিযুক্ত আব্দুস সোবহানকে পিটুনি দিয়ে পুলিশের হাতে তুলে দেয়। পরে পুলিশ আব্দুস সোবহানকে আদালতে বিচারকের কাছে হাজির করলে সে ঘটনার সত্যতা স্বীকার করায় তাকে লক্ষ্মীপুর জেলা কারাগারে প্রেরণ করা হয়। লক্ষ্মীপুর সদর থানার ওসি লোকমান হোসেন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, অভিযুক্ত মসজিদের ইমাম আব্দুস সোবহান আদালতে ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন। কয়েকদিনের মধ্যে নির্যাতনের স্বীকার শিশুটির মায়ের দায়ের করা মামলাটি আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করা হবে।