লক্ষ্মীপুরে এএসআইসহ দুই পুলিশকে মারধর

নিজস্ব প্রতিবেদক :লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে সহকারী উপ-পরিদর্শকসহ (এএসআই) দুই পুলিশকে মারধর করা হয়েছে। গায়ে মোটরসাইকেল লেগে যাওয়ার অভিযোগে জাহাঙ্গীর আলম লিটন আখন নামে এক ব্যক্তি এ ঘটনা ঘটান।শনিবার (২৬ মে) দুপুরে উপজেলার দক্ষিণ চরবংশী ইউনিয়নের পশ্চিম চরলক্ষী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনের সড়কে এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে হাজীমারা পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক (এসআই) জালাল ঘটনাস্থল যান।লিটন উত্তর চরবংশী ইউনিয়ন পরিষদের ৩ নম্বর ওয়ার্ড সদস্য (মেম্বার) আলমগীর হোসেন ওরফে মো. আলী আখনের বড় ভাই।আহতরা হলেন সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) ফারুক হোসেন ও কনস্ট্রেবল মো. হাবীব।

তারা হাজীমারা পুলিশ ফাঁড়িতে কর্মরত। তারা স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা নিয়েছেন।প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ জানায়, ঘটনার সময় মোটরসাইকেলযোগে ওই দুই পুলিশ আখন বাজার এলাকায় এক বাড়িতে আদালতের নোটিশ নিয়ে যাচ্ছিলেন। পশ্চিম চরলক্ষী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে পৌঁছলে সড়ক ওপর একটি অটোরিকশাকে সাইট দেয়। এসময় সড়কের পাশে দাড়িয়ে থাকা লিটনের গা ঘেঁষে পুলিশের মোটরসাইকেলটি যায়। একপর্যায়ে লিটন পুলিশকে অশালীন কথা বলে। ওই দুই পুলিশ সদস্য মোটরসাইকেল পাস করে কারণ জানতে চাইলে কিছু বুঝে ওঠার আগেই তাদেরকে এলোপাতাড়ি মারধর করা হয়।ঘটনার পর থেকে লিটন ও তার পরিবারের সদস্যরা পলাতক রয়েছেন। মোবাইলফোন বন্ধ থাকায় তাদের বক্তব্য জানা যায়নি।হাজীমারা পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক (তদন্ত) আলমগীর হোসেন বলেন, পুলিশের মোটরসাইকেল লিটনের গা ঘেঁষে গেছে। তবে তার শরীরে লাগেনি। এনিয়ে তার সঙ্গে হাতাহাতি হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশের পক্ষ থেকে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। ঘটনার পর লিটন ও তার ইউপি সদস্য ভাই বাড়িঘরে তালা দিয়ে পালিয়ে গেছেন।