ঈদে জীবনের প্রথম নতুন জামা পেল লক্ষ্মীপুরের মেঘনার দ্বীপ চর শামছুদ্দিনের শিশুরা

নিজস্ব প্রতিনিধি: ঈদে নতুন জামা? এমন কিছু জন্মের পরে কখনো কল্পনাও করেনি লক্ষ্মীপুরের মেঘনা নদীর বুকে জেগে থাকা দ্বীপ চর শামছুদ্দিনের হতভাগ্য শিশুরা। কিন্তু এ বছর তাদের জীবনের প্রথম ঈদ হবে নতুন পোশাকে। মেঘনার বুকের শিশুদের জন্য এমন কাজটি করেছে কলেজ ছাত্র জুনাইদ আল হাবিবের নেতৃত্বে তার সৃজনশীল সংগঠন  “আলোকযাত্রা-কোস্টাল ইয়ুথ নেটওর্য়াক”। এ কাজে সামান্য করে অর্থ দিয়ে সহযোগিতা করেছে কয়েকজন হৃদয়বান মানুষ।

তাদের আর্থিক সহযোগিতায় টানা দ্বিতীয়বারের মতো লক্ষ্মীপুরে মেঘনার ভাঙনে ক্ষত- বিক্ষত ও দুর্গম দ্বীপ-চরাঞ্চলের তিন শতাধিক শিশু ঈদের আগেই নতুন পোশাক পেয়েছে। সোমবার (১১ জুন) “আলোকযাত্রা-কোস্টাল ইয়ুথ নেটওর্য়াক” লক্ষ্মীপুর টিমের আয়োজনে মতিরহাট নিকটবর্তী লক্ষ্মীপুরের দ্বীপ চর রমনী মোহন ও জেলার কমলনগরের মেঘনাপাড়ের নদীভাঙা, অসহায়, ছিন্নমূল, সুবিধা বঞ্চিত পথশিশু, এতিম ও বিপন্ন শিশুদের মাঝে ঈদের এ নতুন পোশাক বিতরণ করা হয়।

ঈদ পোশাক বিতরণ আয়োজনে নদীপার হয়ে উপস্থিত ছিলেন, লক্ষ্মীপুর সরকারি কলেজ শিক্ষক পরিষদ সম্পাদক প্রফেসর মাহবুবে এলাহি সানি, ব্যবস্থাপনা বিভাগের সহকারি অধ্যাপক সাইফুল ইসলাম ভুঁইয়া (তপন), লক্ষ্মীপুরটোয়েন্টিফোরর সম্পাদক সানা উল্লাহ সানু, শিক্ষক নুর হোসেন পারভেজ, পুলিশ সদস্য ইছমাইল হোসেন রুবেল, বাইতুস সালাম জামে মসজিদের ইমাম আবদুল হাদি (মুন্সি), সমাজকর্মী মো. ওমর ফারুক, খুরশিদ আলম চৌধুরী, কামরুজ্জামান মাসুদ, শামীম আল শামস, আলোকযাত্রা সদস্য জাহিদ হাসান তুহিন, মো. ইয়াছিন, নাদিম হোসেন স্বজন, ফয়সাল মাহমুদ ফারাবি প্রমুখ।

“আলোকযাত্রা-কোস্টাল ইয়ুথ নেটওর্য়াক” লক্ষ্মীপুরের টিম লিডার ও কিশোরত্তীর্ণ সংবাদকর্মী জুনাইদ আল হাবিব সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে এসব শিশুদের ঈদবস্ত্রের জন্য সহায়তা চান। তার এ প্রচেষ্টায় সাড়া দিয়ে সামর্থানুযায়ী বিত্তবানরা এগিয়ে আসেন। শুরুটা হয়েছিল গতবছর থেকে। কার্যক্রমের ধারাবাহিকতায় এবারো লক্ষ্মীপুরের কমলনগরের মেঘনাপাড় ও দ্বীপ চর রমনী মোহনের তিন শতাধিক শিশুর মাঝে ঈদবস্ত্র বিতরণ করা হয়।