অষ্টম শ্রেনীর বৃত্তির ফল প্রকাশিত

সানা উল্লাহ সানু : গত নভেম্বরে অনুষ্ঠিত জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) পরীক্ষার ফলের ভিত্তিতে বৃত্তির ফল প্রকাশ করেছে শিক্ষা বোর্ডগুলো। ২৪ এপ্রিল আটটি শিক্ষা বোর্ডের নিজস্ব ওয়েবসাইটে বৃত্তিপ্রাপ্তদের তালিকা প্রকাশ করা হয়। জেএসসির পরীক্ষার ফলের ভিত্তিতে সম্প্রতি অনুমোদিত বৃত্তির নীতিমালার আলোকে মেধা বৃত্তি ও সাধারণ বৃত্তির তালিকা প্রণয়ন ও প্রকাশ করা হয়। শিক্ষা বোর্ডগুলোর ওয়েবসাইটে (educationboard.gov.bd)-এ ফলাফল প্রকাশ করা হয়েছে। শুধুমাত্র লক্ষ্মীপুর জেলার ফলাফল পেতে এখানে ক্লিক করুন

এবার লক্ষ্মীপুর জেলা থেকে মোট ৩শ ৩১টি বৃত্তিলাভ করে। যার মধ্যে ট্যালেন্টফুল কোটায় ১শ ৬ জন এবং সাধারণ কোটায় ২শ ২৫ জন। উপজেলা ভিত্তিক লক্ষ্মীপুর সদর পেয়েছে ট্যালেন্টফুল কোটায় ৪৮ জন এবং সাধারণ কোটায় ১০১ জন,রামগঞ্জ উপজেলা পেয়েছে ট্যালেন্টফুল কোটায় ২৪ জন এবং সাধারণ কোটায় ৫০ জন,রামগতি উপজেলা পেয়েছে ট্যালেন্টফুল কোটায় ১১ জন এবং সাধারণ কোটায় ২৪ জন,রায়পুর উপজেলা পেয়েছে ট্যালেন্টফুল কোটায় ১৬ জন এবং সাধারণ কোটায় ৩৫ জন,কমলনগর উপজেলা পেয়েছে ট্যালেন্টফুল কোটায় ৭ জন এবং সাধারণ কোটায় ১৫ জন।

কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ড সূত্রে জানা যায় পরীক্ষায় প্রাপ্ত জিপিএ (৪র্থ বিষয় ব্যতিত) এর ভিত্তিতে বৃত্তি প্রদান করা হয়েছে। একই গ্রেড প্রাপ্তদের ক্ষেত্রে ৪র্থ বিষয় ব্যতীত প্রাপ্ত মোট নম্বরের ভিত্তিতে, ৪র্থ বিষয় ব্যতীত প্রাপ্ত মোট নম্বর একই হলে ৪র্থ বিষয়সহ প্রাপ্ত মোট নম্বর, ৪র্থ বিষয়সহ প্রাপ্ত মোট নম্বর একই হলে পর্যায় মে বাংলা, ইংরেজি ও সাধারণ
গণিতে প্রাপ্ত মোট নম্বরের ভিত্তিতে মেধা ও সাধারণ উভয় কোটা মিলিয়ে সার্বিকভাবে ছাত্র/ছাত্রী সমানুপাতিক হারে বৃত্তির তালিকা প্রণয়ন করা হয়েছে। বিজোড় সংখ্যা বৃত্তি প্রদানের ক্ষেত্রে সর্বশেষটি ছাত্র/ছাত্রী বিবেচনা না করে অধিক নম্বরধারীকে নির্ধারণ করা হয়েছে।

বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীরা দশম শ্রেণী পর্যন্ত বিনা বেতনে অধ্যয়নের, মেধা কোটায় বৃত্তিপ্রাপ্তরা প্রতি মাসে ৩০০ টাকা এবং শিক্ষা উপকরণ ক্রয় বাবদ প্রতি বছর ৩৭৫ টাকা পাবে।
সাধারণ কোটায় বৃত্তিপ্রাপ্তরা ২০০ টাকা হারে প্রতি মাসে বৃত্তি পাবে এবং শিক্ষা উপকরণ ক্রয় বাবদ প্রতি বছর ২২৫ টাকা পাবে।