লক্ষীপুরে উদ্ধার হওয়া সেই লাশ কুমিল্লার মোস্তফা কামাল

নিজস্ব প্রতিনিধি: কুমিল্লার নাঙ্গলকোটের মোস্তফা কামাল (৩২) নিখোঁজের ৫ দিন পর সোমবার (২৯ জানুয়ারি) লক্ষীপুর সদর বাস টার্মিনাল সংলগ্ন একটি ডোবা থেকে পুলিশ তার মরদেহ উদ্ধার করেছে। তিনি নাঙ্গলকোট পৌরসভার দাউদপুর এলাকার আলী আজ্জমের ছেলে। পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, গত ২৫ জানুয়ারি সন্ধ্যায় মোস্তফা কামাল ঢাকা থেকে বাড়ি রওয়ানা হয়ে আর পৌঁছায়নি। বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুজি করেও তার কোন সন্ধান পাওয়া যাচ্ছিল না। আজ বিভিন্ন মাধ্যমে খবর পেয়ে লক্ষীপুরে গিয়ে পরিবারের লোকজন মোস্তফার লাশ সনাক্ত করেন। মোস্তফা কামাল ঢাকার ইসলামপুরে শুকরিয়া বস্ত্র বিতান নামের একটি দোকানে চাকুরি করতেন।

দোকান মালিক নাঙ্গলকোটের বাঙ্গড্ডা ইউপির হেসিয়ারা গ্রামের জালাল আহম্মেদ ২৬ জানুয়ারি সকালে মোস্তফার স্ত্রী জান্নাতুল ফেরদৌসকে ফোন করে মোস্তফা কামাল বাড়িতে পৌঁছার সংবাদ জানতে চান। স্ত্রীর কাছ থেকে তার বাড়িতে না আসার খবর জেনে দোকান মালিক জালাল আহম্মেদ ২৭ জানুয়ারি ঢাকা সূত্রাপুর থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন। নাঙ্গলকোট ব্রাক পুষ্টি প্রকল্পের স্বাস্থ্য কর্মী জান্নাতুল ফেরদৌস স্বামীর মৃত্যুর সংবাদে দুটি অবুঝ শিশুকে নিয়ে এখন পাগল প্রায়। এলাকায় বইছে শোকের মাতম। জান্নাতুল ফেরদৌস তার স্বামী হত্যার সাথে জড়িতদের খুঁজে বের করে আইনের আওতায় আনার জন্য আইন প্রয়োগকারী সংস্থার সহযোগিতা কামনা করেছেন।