লক্ষ্মীপুরে ইভটিজিংয়ে বাধা দেয়ায় হামলা

নিজস্ব প্রতিনিধি: লক্ষ্মীপুরে স্ত্রীরকে উত্ত্যাক্ত করার প্রতিবাদে করায় স্বামীসহ এক দম্পত্তিকে হত্যার উদ্যেশে মারধর করে স্থানীয় আলম নামে এক বখাটে। এ সময় আলমের সাথে তার ভাই নিজাম, বাবা তোফায়েলসহ চারজন একত্রে বেধম মারধর করে ওই দম্পত্তিকে। আহত অবস্থায় লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছে তারা। মঙ্গলবার দুপুরে সদর উপজেলা উত্তর হামছাদী ইউনিয়নের বিজয়নগর এলাকায় ঘটনাটি ঘটে। চিকিৎসাধীন অবস্থায় ভুক্তভোগী লিটন জানায়, স্থানীয় আলম বিভিন্ন সময় রাতের অন্ধকারে ঘরের পাশে এসে দাঁড়িয়ে থাকে উকি দেয়। এছাড়াও তার স্ত্রী নুরজাহান মিশুকে বিভিন্ন সময় উত্যাক্ত করে আসছে। একাধিকবার তাকে নিষেধ করা হলেও সে আরো ক্ষীপ্ত হয়। মঙ্গলবার বৈদ্যুতিক বাতি বিক্রয়কে কেন্দ্র করে আলমের সাথে লিটনের বাক-বিতন্ডার ঘটনা ঘটে।

এক পর্যায়ের পূর্বের জেরধরে লিটনকে সাবাল ও বাঁশ দিয়ে এলোপাতাড়ি মারধ করে এবং তাকে হত্যার উদেশ্যে তার অন্ডকোষ চেপে ধরে। একপর্যায় স্ত্রী মিশুকেও মাধর করে এবং শ্লীতাহানী চেষ্টা করে। এসময় স্ত্রী মিশুর পরিহিত এক ভরি স্বর্ণের চেইন ও ব্যবসায়ীক কাজ রক্ষিত নগদ ৭ হাজার টাকা নিয়ে যায় বখাটেরা। এঘটনায় লক্ষ্মীপুর সদর থানায় মামলা প্রস্তুতি নিচ্ছে ভুক্তভোগীরা।