কমলনগরে পৃথক ঘটনায় ছাত্রলীগ নেতা ও পল্লী চিকিৎসককে কুপিয়ে আহত

নিজস্ব প্রতিনিধি: কমলনগর উপজেলার হাজিরহাট এলাকায় পৃথক ঘটনায় ছাত্রলীগ নেতা দিদার হোসেন (২৬) ও জুয়েলকে (২৫) পিটিয়ে রগ কেটে দিয়েছে শিবির। রোববার সন্ধ্যায় সাড়ে ৭ টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। দিদার হোসেন কমলনগর উপজেলা ছাত্রলীগের সহ সভাপতি ও জুয়েল সদস্য।

অন্যদিকে একই দিন গভীর রাতে হাজিরহাট বাজারের ওষুধের ব্যবসায়ী ও স্থানীয় পল্লী চিকিৎসক মো.রফিক (৪৮) কে কুপিয়ে আহত করেছে দুর্বৃত্তরা।

প্রথম ঘটনায় কমলনগর উপজেলা যুব লীগের সভাপতি ফজলুল হক সবুজ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ছাত্রলীগের ওই দুনেতা মোটরসাইকেল যোগে করুনানগর থেকে হাজিরহাট আসছিল। পথে ফোরকানিয়া এলাকায় পৌছলে শিবির ক্যাডারা তাদের পিটিয়ে রগ কেটে দেয়। গুরুতর অবস্থায় তাদেরকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। তবে ঘটনার সাথে জড়িত কাহারো নাম না তাৎক্ষণিক তিনি জানাতে পারে নি।

এ দিকে আহত পল্লী চিকিৎসকের স্বজনরা জানায়, গভীর রাতে ৫/৬ জনের একদল দুর্বৃত্ত তার বাসায় ঢুকে তাকে কুপিয়ে আহত করে পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় ক্লিনিকে ভর্তি করে।

একই দিনে এ দুটি ঘটনার বিষয়ে কমলনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হুমায়ুন কবির বলেন ঘটনার সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে